President

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে প্রতিরক্ষা চুক্তি করতে চায় চীন। সম্প্রতি শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়া চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সাথে প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনার বৈঠকে দুই দেশের মধ্যে প্রতিরক্ষা-সংক্রান্ত সম্ভাব্য চুক্তির ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা বলেছেন, চীন ও শ্রীলঙ্কা কয়েকটি চুক্তি করবে। তিনি আশা প্রকাশ করেছেন, শ্রীলঙ্কার নিরাপত্তা বাহিনী প্রয়োজনীয় চীনা প্রশিক্ষণের প্রতিও আস্থা প্রকাশ করেছেন। প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা আরো ঘোষণা করেন, চিনের সঙ্গে চুক্তির ফলে শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতার প্রতি কোনো ধরনের সমস্যার সৃষ্টি হবে না। প্রেসিডেন্টের পাশাপাশি চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল চ্যাঙ শ্রীলঙ্কার সেনা, বিমান ও নৌবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন। তারা প্রতিরক্ষা বিষয়, বিশেষ করে সামুদ্রিক নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করবেন।

সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর মোতাবেক, জানায়, চীনের লক্ষ্য হল শ্রীলঙ্কার সঙ্গে দীর্ঘ মেয়াদি সম্পর্ক উন্নয়ন ঘটান। চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী চীন ও শ্রীলঙ্কার কূটনৈতিক সম্পর্কের ৬০ বছরের ইতিহাসের কথাও স্মরণ করেছেন। 
অন্যদিকে, চীন এবং শ্রীলঙ্কার মধ্যে যদি প্রতিরক্ষা চুক্তি হয় তাহলে কিছুটা হলেও চাপে পড়বে ভারত। আর সেটাই করতে চাইছে চীন। যেমনটা ভিয়েতনামকে আকাশ মিসাইল দিয়ে চীনকে চাপে রাখতে চাইছে ভারত।

২১ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২৩ পি.এম