President

পাকিস্তানের সঙ্গে চীনের সখ্যর কথা সর্বজনবিদিত। কলম্বোর সঙ্গেও সখ্য বাড়িয়েছে বেইজিং। দক্ষিণ এশিয়ায় ভারতের উদ্বেগ আরো বাড়াতে এবার পাহাড় ঘেরা নেপালের দিকে নজর চীনের। এই প্রথম নেপালের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করল চীন। পিপলস লিবারেশন আর্মির একটি দল ইতিমধ্যেই কাঠমাণ্ডু পৌঁছে গেছে। 
‘সাগরমাথা ফ্রেন্ডশিপ, ২০১৭’ নামে ওই যৌথ সামরিক কর্মসূচি চলবে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত। নেপালের সেনা মুখপাত্র জানিয়েছেন, সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হানা দমন করার প্রয়োজনেই এই সেনা মহড়া। 
নেপালের মাটিতে চীনা বাহিনীর পদার্পনে স্বভাবতই চাপ বেড়েছে নয়াদিল্লির। কারণ কাঠমাণ্ডুর সঙ্গে নয়াদিল্লির পুরানো সখ্য থাকলেও, এখন বেইজিং তাতে ভাগ বসাতে চাইছে। আমদানির জন্য ভারতের উপর অনেকটাই নির্ভরশীল ‘ল্যান্ডলকড’ দেশ নেপাল। ২০১৫ থেকে মদেশীয়দের বিক্ষোভের জেরে ভারত থেকে আমদানি মার খেয়েছিল। পরিস্থিতি সামাল দিতে তখন আসরে নামে বেইজিং। এখন সেই সখ্য আরো বাড়িয়ে প্রথম যৌথ সামরিক মহড়া দিতে নামছে চীন।

১৬ এপ্রিল, ২০১৭ ২৩:৩৫ পি.এম