President

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে চলে যাওয়ার পর বাংলাদেশ দলের কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে ছিলেন রিচার্ড পাইবাস ও ফিল সিমন্স। দুজনে ঢাকায় এসে বিসিবির কাছে সাক্ষাৎকারও দিয়ে গেছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অলরাউন্ডার সিমন্স সেই সাক্ষাৎকারে ৪০ মিনিটেই তুলে ধরেছিলেন বাংলাদেশ দল নিয়ে তাঁর ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা। কিন্তু এখন আর সিমন্সের সাকিব-মুশফিকদের কোচ হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। জাতীয় দলের নতুন হেড কোচ হিসেবে তাঁর নাম ঘোষণা করেছে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)।

আগামী ৮ জানুয়ারি থেকে মোহাম্মদ নবী-রশিদ খানদের দায়িত্ব নেবেন ৫৪ বছর বয়সী সাবেক এ ক্রিকেটার। ফেব্রুয়ারিতে শারজায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে আফগানিস্তান। এ সিরিজ সামনে রেখে সিমন্স দুবাইয়ে যোগ দেবেন তাঁর শিষ্যদের সঙ্গে। আফগান জাতীয় দলের কোচ হিসেবে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি হয়েছে সিমন্সের।
আফগানিস্তান দলের কোচ হিসেবে লালচাঁদ রাজপূতের স্থলাভিষিক্ত হবেন সিমন্স। ভারতের সাবেক ক্রিকেটার রাজপূত কোচের দায়িত্ব নেওয়ার তিন মাস পরই এসিবি কর্তৃক ছাঁটাই হন। বাংলাদেশ দলের কোচ হওয়ার দৌড়ে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি এসিবিতেও যোগাযোগ করেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২৬ টেস্ট এবং ১৪২ ওয়ানডে খেলা সিমন্স। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে ও আয়ারল্যান্ড দলের কোচ হিসেবে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। এ ছাড়া গত বছর আফগান জাতীয় দলেরই কোচিং কনসালট্যান্ট হিসেবে কাজ করেছেন সিমন্স।

৩১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২৩:৩৫ পি.এম