President

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

দেশের ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য বেশ ক’বছর আগে রাজধানীর মহাখালীতে গড়ে তোলা হয় জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল (এনআইসিআরএইচ)। কিন্তু অব্যবস্থাপনায় বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানটি যেন নিজেই ক্যান্সারে ধুঁকছে।

ঢাকা: দেশের ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য বেশ ক’বছর আগে রাজধানীর মহাখালীতে গড়ে তোলা হয় জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল (এনআইসিআরএইচ)। কিন্তু অব্যবস্থাপনায় বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠানটি যেন নিজেই ক্যান্সারে ধুঁকছে।
 
হাসপাতালটি ঘুরে দেখা গেছে, যেখানে-সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলে রাখায় চরম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। এমনকি রোগীর জানালার পাশেই রাখা হয়েছে ডাস্টবিন! আবার ময়লা কাপড়ের ঝুড়ি, ময়লা ফেলার উপকরণও রাখা হয়েছে হাসপাতালের অবজারভেশন রুমের সামনে। 

হাসপাতালের ঠিক ভেতরে যে ফাঁকা জায়গা রয়েছে, সেখানেও অবাধে ফেলা হয়েছে ময়লা-অবর্জনা। বিভিন্ন প্লাস্টিক দ্রব্যের অব্যবহৃত অংশ, খাবারের উচ্ছিষ্ট, কাগজ, প্লাস্টিকের বোতল এসব দিয়ে রীতিমত ময়লার ভাগাড়েই পরিণত করা হয়েছে হাসপাতাল এলাকাকে।
 
হাসপাতালের সিঁড়ি বেয়ে ভেতরে প্রবেশ করলেই হাতের বাঁয়ে চোখে পড়ে পুরুষ অবজারভেশন রুম। এখানেই রোগীদের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হয়। কিন্তু এই রুমের ডান দিকেই জানালার কাছে রয়েছে কিছুটা মাঝারি আকারের ডাস্টবিন। যেখানে অবাধে ময়লা ফেলা হচ্ছে। ডাস্টবিনের ঢাকনাও নেই। ফলে রুম ও রুমের বাইরে অবস্থান করা হয়ে পড়ে দুর্বিষহ।

পুরুষ অবজারভেশন রুম থেকে একটু সামনে গেলেই হাতের বাঁয়ে পড়ে নারী অবজারভেশন রুম। এই রুমের সামনেই ময়লা কাপড় রাখার বড় সাইজের পাত্র, বস্তা, বালতি রাখা হয়েছে। যেখানে অক্সিজেন সিলিন্ডার আর রোগীর স্বজনের ব্যাগও রাখা হয়েছে।

১০ এপ্রিল, ২০১৭ ১৯:১৪ পি.এম